শালুক সাহিত্যসন্ধ্যার সপ্তম আয়োজন > মাশরুরা লাকী >> সাহিত্য সংবাদ

0
186

শালুক সাহিত্যসন্ধ্যার সপ্তম আয়োজন

কবি ওবায়েদ আকাশ সম্পাদিত সাহিত্য ও চিন্তাশিল্পের পত্রিকা শালুক এবার ২০ বছরে পা দিয়েছে। গত সাত মাস ধরে পত্রিকাটির ব্যান্যারে শালুক-সাহিত্যসন্ধ্যা নামে অনুষ্ঠিত হচ্ছে নিয়মিত সাহিত্যসন্ধ্যা।
আগামীকাল ৪ অক্টোবর, শুক্রবার বিকাল সাড়ে চারটায় শাহবাগের পাঠক সমাবেশ কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে এর সপ্তম আয়োজন। এবারের আয়োজনে যথারীতি থাকছে ভিন্ন ধরনের বিষয়ভিত্তিক আলোচনা, নির্বাচিত কবিদের কবিতাপাঠ, আবৃত্তি ও উদ্বোধনী সঙ্গীত।
ইতিমধ্যে শালুক সাহিত্যসন্ধ্যা তরুণ প্রবীণ কবি-লেখক সাহিত্যানুরাগীদের মধ্যে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। বিশেষ করে লিটল ম্যাগাজিনকেন্দ্রিক সাহিত্যান্দোলনে যোগ করেছে নতুন মাত্রা। চেতনার জাগরণে প্রতিষ্ঠানবিরোধী সাহিত্য অনুশীলন যখন প্রায় স্তিমিত তখন কবি ওবায়েদ আকাশের আগ্রহ ও সক্রিয় উদ্যোগে এই সাহিত্য-আড্ডা একটি নতুন মাত্রা সৃষ্টি করেছে। যারা নতুন করে ভাবছেন, সাহিত্য নিয়ে নতুন নতুন স্বপ্ন দেখছেন, তাদের জন্য এই সাহিত্যসন্ধ্যা বিশেষ আগ্রহের তৈরি করেছে। প্রতিমাসের প্রথম শুক্রবার তাই এই আড্ডাটি হয়ে ওঠে নির্মোহ, অনাবিল প্রাণের উচ্ছ্বাসে ভরপুর এক সাহিত্য-আড্ডা। আলোচনা, কবিতাপাঠ ও তর্ক-বিতর্কে চলতে থাকে রাত নটা-দশটা অবধি।
প্রতি আড্ডাতেই নতুন নতুন মুখের অনেক সাহিত্যকর্মীকে দেখা যায় আড্ডায় অংশ নিতে।
এবারের আড্ডার মূল আলোচ্য বিষয় ‘অনুভূতির ভাষায়, পাতাল স্পর্শ হয়’। এ বিষয়ে প্রবন্ধ লিখেছেন পশ্চিমবঙ্গের সত্তরের দশকের বিশিষ্ট কবি সুব্রত সরকার। প্রবন্ধের ওপর আলোচনা করবেন কবি কুমার চক্রবর্তী, কবি ওবায়েদ আকাশ ও কবি পিয়াস মজিদ। সুব্রত সরকারের কবিতা নিয়ে আলোচনা করবেন কবি মেঘ অদিতি।
আলোচনা শেষে মুক্ত আলোচনায় অংশ নেবেন উপস্থিত আগ্রহী কবি-লেখকেরা।
এবারের নির্বাচিত কবিরা হচ্ছেন : কবি রুবী রহমান, মাসুদুজ্জামান, বিমল গুহ, আবদুর রাজ্জাক, হাইকেল হাশমী, শিহাব শাহরিয়ার, সুহিতা সুলতানা, জামিরুল শরীফ, চয়ন শায়েরী, ভাগ্যধন বড়ুয়া, মাহফুজ আল-হোসেন, জাফর সাদেক, খোরশেদ বাহার, জুনান নাশিত, খোকন মাহমুদ, মামুন মুস্তাফা, কবির হোসেন, আদিত্য নজরুল, মাহফুজ রিপন, শেলী সেনগুপ্তা, শফিক সেলিম, অমিত আশরাফ, তিথি আফরোজ, চামেলী বসু, ডালিয়া চৌধুরী, শ্রাবণী প্রামানিক, মাশরুরা লাকী, বীথি রহমান, রিসতিয়াক আহমেদ ও নীলা হারুন। এছাড়া থাকবে আবৃত্তি ও উদ্বোধনী সঙ্গীত। কবিতা আবৃত্তি  করবেন নায়লা তারান্নুম চৌধুরী।
এবারের আয়োজন নিয়ে শালুক সম্পাদক কবি ওবায়েদ আকাশ বলেন, শুধু ঢাকায় নয়, বিশ্বের যেখানে বাঙালিরা আছেন সব জায়গাতেই প্রায় ছড়িয়ে পড়েছে এই ‍আড্ডার রেশ। সারা বিশ্বের বাঙালিদের কাছ থেকে আমরা সাড়া পাচ্ছি। অনেকে বাংলাদেশে এসে আড্ডায় অংশ নেবার আগ্রহ দেখাচ্ছেন। এবারের মূল প্রবন্ধ লিখেছেন পশ্চিমবঙ্গের কবি সুব্রত সরকার। তার আগ্রহ প্রবল এ বিষয়ে। তিনি চান শালুক সাহিত্যসন্ধ্যায় অংশ নিতে। কিন্তু যেহেতু তিনি এখন আসতে পারছেন না, তাই তিনি অনুষ্ঠানের জন্য একটি প্রবন্ধ লিখে পাঠিয়েছেন। তার প্রবন্ধটি পড়ে শোনাবেন তরুণ কবি স্নিগ্ধা বাউল।
আরো আশার কথা হলো, লেখকরা এখন দাবি তুলেছেন আড্ডাটি মাসিক না করে পাক্ষিক করার জন্য, যাতে ঘন ঘন এই মাহেন্দ্রক্ষণটি আসে। বিষয়টি আমরা অবগত হয়েছি এবং ভবিষ্যতে এ ব্যাপারে জানানো হবে। তবে আপাতত মাসিক আড্ডা হিসেবেই চলবে।
শালুক সাহিত্যসন্ধ্যা ভিন্ন ধারার কবি-লেখকদের সরাসরি যোগাযোগের একটি প্ল্যাটফরম। এখানে সবাই অংশ নিয়ে পরস্পর নিজেদের শাণিত করছে। অগ্রসর করছে।
ওবায়েদ আকাশ আরো মনে করেন, শালুক শুধুমাত্র একটি লিটল ম্যাগাজিন নয়, একটি আন্দোলন, চেতনার বিস্ফোরণ।
এই সাহিত্যসন্ধ্যা লিটল ম্যাগাজিনকেন্দ্রিক আন্দোলনে একুশ শতকে নতুন মাত্রা সংযোজন করেছে। আগামীতে এর প্রভাব আরও স্পষ্ট হয়ে উঠবে।
আর একটি বড় খবর হচ্ছে আগামী ২২ নভেম্বর শালুক-এর ২০ বছর পূর্তি উপলক্ষে বড় পরিসরে একটি সাহিত্য সম্মেলন হতে চলেছে। যেখানে দেশ-বিদেশের গুরুত্বপূর্ণ কবি লেখকেরা অংশ নেবেন।