মূল কবিতা : নরমা গনজালেজ | অনুবাদ : মাসুদুজ্জামান | স্প্যানিশ কবিতার বঙ্গানুবাদ | কবিতাগুচ্ছ

0
117

Traducción al bengalí de poemas en español
Original de Norma González
Traducido por Masuduzzaman

স্প্যানিশ ভাষায় মূল কবিতা : নরমা গনজালেজ
বঙ্গানুবাদ : মাসুদুজ্জামান

জল-বানান

নদী সোজা চলে যায়
নিম্ন জলাশয়ে,
তার পিঠে,
রোদ নিজেকে প্রসারিত করে,
আলোর উন্মোচন
পান্নার বহুবিচ্ছুরণ
নীল, পোখরাজ আর নীলাভ পুষ্প,
আকাশের মখমল
নদীতে ঝাপ দেয়।

পৃথিবী নিজেকেই নিজে প্রতিফলিত করে
তরল আর গুহার মতো মন্দিরে
এর ধারালো, জ্যামিতিক,
বৃত্তাকার ও দীর্ঘাকার বস্তুরাশি
আমি সেতুর উপরে বাঁক নিই
আমার বাহু ছড়িয়ে যায়
নিজের ছায়াও পড়ে যায়,
বৃত্তাকার, মদিরা-মাতাল
লক্ষ লক্ষ ফোঁটায় ফোঁটায় নিজেকে ডুবিয়ে দেয়
আলিঙ্গনের পরমাণুর মধ্যে বাধা পড়ে

এমনকি সীমান্তও নয়
যে ফিরে আসছে তাকে চিহ্নিত করতে পারে
গুরুত্বপূর্ণ ধ্রুবকগুলির কাছে,
চূড়ান্ত প্রত্যাশা
এই নির্বাক মুহূর্তগুলোকেও অস্বীকার করতে পারে।

এটা আমার.

আলো আমার ডানা তৈরি করে দিচ্ছে
যেন সে আমার নিজের শরীর পড়ছে
আর তৈরি করছে ভাষা।

ঠিক ঠিক শব্দগুলো আমার মুখে আসছে
আর নাম
আমি যা দেখি, স্পর্শ করি, অনুভব করি এবং গন্ধ পাই
সবই একটি দীর্ঘশ্বাসের সঙ্গে জড়িত
আমি আবার জন্ম নিচ্ছি।

আবেগী পুরাণ

অনেক উঁচু থেকে আমি গুপ্তচরবৃত্তি করি আর দেখি
কীভাবে নদী
যে গন্ধক ঊর্ধ্বগামী তার ভেতরেও তোমাকে আলিঙ্গন করে
তুমি উষ্ণ বসন্তকে অনুভব করতে পারো
এভাবেই নীরবতা ফুটতে থাকে
তোমার স্থানে স্থানে সহস্রাব্দের চূড়া,

কত যে জীবন এর মধ্য দিয়ে তোমাকে অতিক্রম করে গেছে
ধীর পদক্ষেপের সুরেলা শব্দে,
মাটির গল্পের নগ্ন কথা।

কে খুলে দিল সুয়োরানীর হৃদয়
তোমার বন্য রক্তের,
তোমার সাহসী বনে সূর্যের চলাচল?

সময়ের টানেল ছোট করার চেষ্টা করছে
স্বপ্নময় তীরের মধ্যে তোমার সীমান্ত।
রাত বিকেলের মধ্যে হারিয়ে যায়,
বাড়ির চড়ুইগুলোর তন্দ্রাচ্ছন্নতায়
যে শাখা প্রসারিত হয়.
কিন্তু হঠাৎ অলসতায় সে জ্বলে ওঠে
সিয়েস্তা সময়
শুক্র মঙ্গলস্নানের প্রস্তুতি নিচ্ছে।
জলের তাপমাত্রায়
ইন্দ্রিয়গুলি শিথিল।
আঙুলগুলো ছোঁয় গিটারের তার
সবচেয়ে সাহসী যোদ্ধার মতো
দাসত্ব করা মাংসপেশীর ভেতর দিয়ে তারা গড়িয়ে পড়ে।

সে তার সাদা স্বচ্ছ পোশাকের বাষ্পে জড়ানো
জলের চেয়ে মিষ্টি আর খাঁটি
আমি সিবো গাছের পটভূমিতে দেবীকে দেখতে পাচ্ছি,
বিকেলে হেলান দিয়ে,
তার কাপড়ের ভাঁজে নিমজ্জিত,
বৃত্তাকার রসালো স্তনের নিচে মৃদু পতন ঘটছে
তার ভেজা কোকড়ানো চুল থেকে ফোঁটাগুলো ঝরছে

তার চিনি-চোখ একটি হাসির স্কেচ আঁকলো আর দেখল
মঙ্গল গ্রহের নগ্ন ধড়, কোন বর্ম ছাড়াই,
তার লাল জামা ও বর্মে
একটি লিনেন ড্রাগন-উড়ন্ত পোশাকে
যোদ্ধার মতো তার হৃদয়,
এই তার সহিংসতা, তার উদ্বেগ।

হেলমেট-সহ,
তাদের বর্শার খুব কাছাকাছি
একটি ওল্টানো ত্রিভুজে
পশুরা বন্দুক নিয়ে নাচে এবং খেলা করে,

নিষ্ক্রিয় মঙ্গল ঘুমায় আর সরে যায়
আমি জানি না পরীদের কোন স্বপ্নে তারা ঢুকে পড়ে।
ভেনাস ইতিমধ্যেই তার মুক্তার মালা খুলে ফেলেছে
এবং জলের তরঙ্গে তিনি লিখে চলেছেন
ভালবাসার কথা :
ফ্রিজিডারিয়াম, টেপিডারিয়াম, ক্যালডারিয়াম আর চিত্রিত
পারানা নদীর ইতিহাস
পাহাড়গুলোর চূড়া।

ফিরে আসা

জাদুর মতো দৃষ্টিশক্তিকে আটকে রাখছে
আমি সেই রজ্জুতেই ফিরে আসছি
যে আমাকে পৃথিবীতে ছড়িয়ে দিয়েছে
আমার ভ্রমণ সত্ত্বেও
বিদেশ থেকে
ছড়ানো টুকরাগুলির মতো যা পড়ে যায়
নিজের ভারে।

অন্য শহরে মারপিট চলছে
আমার চিন্তা ফুলেফেপে উঠছে,
ইউরোপ আর ক্লাসিকস,
ভাষাতত্ত্ব, ভাষা আর বিভিন্ন রীতিনীতি,
সব সময়ের জন্যেই ব্যাবেল।

বড় হয়ে ফিরে আসার জন্যে
তাই আমি ছেড়ে পালিয়ে যাই,
মদের মতো যা গ্লাসে ঘেমে ওঠে
পানপাত্রের মধ্যে পা হড়কে নিচে নামি
হাত আদর চায়,
চিন্তা,
আমার নিজের মতো করে
সময়ে সময়ে খুঁজে ফিরি,
এ আমার নিজেরই কান্না।

চলে গেছে সময়!
আমার দোমড়ানো দিনের দুশ্চিন্তার মধ্যে
যখনই আমি তোমার নাম করি,
আমার সত্তা কবিতায় বড় হয়

হে প্রিয় ভূমি!
গ্রাম্য মৌমাছি রানী মৌমাছিতে রূপান্তরিত হয়
তোমার পুংকেশর থেকে অমৃত চুমুক দিয়ে শুষে নেবে
তোমার পাপড়ি ও পরাগ
ভালোবাসার রুটিকে মাছে পরিণত করবে
শুধু যে-কোনো গ্রীষ্মের সূর্যাস্তে
যখন লাল ফুল শুকনো পাতার মধ্যে জ্বলজ্বল করবে
তখনই একটি ঘরমুখো পাখি ফিরিয়ে দেবে তার
প্রতিশ্রুত গান।

নরমা গঞ্জালেজ পেরাল্টা বিশিষ্ট আর্জেন্টিনীয়-স্প্যানিশ কবি, লেখক, অনুবাদক ও শিক্ষাবিদ। তিনি বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে ল্যাটিন আমেরিকান এবং স্প্যানিশ সাহিত্য পড়ান। স্পেনের পাশাপাশি আর্জেন্টিনার বিভিন্ন সাহিত্যগোষ্ঠীর সঙ্গে যুক্ত। তার গ্রন্থগুলি স্পেন এবং আর্জেন্টিনা থেকে প্রকাশিত হয়েছে। বাংলাদেশের বহুভাষী সাহিত্য পত্রিকা দ্য আর্চারের স্প্যানিশ সম্পাদক।

মাসুদুজ্জামান কবি, প্রাবন্ধিক, অনুবাদক। বাংলাদেশের খ্যাতিমান লেখক। প্রকাশিত গ্রন্থ : ৩২টি।

Share Now শেয়ার করুন